সরকার খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে নিঃশেষ করতে চায়: রিজভী আপডেট: 16-04-2018   
সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার তিলে তিলে নিঃশেষ করতে চায় বলে অভিযোগ করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে গুরুতর অসুস্থ। এখন পর্যন্ত তাকে কোনো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। তিনি বলেন, সরকারী মেডিকেল বোর্ড মামুলি প্রহসনের এক্সরে ও রক্ত পরীক্ষা করে ফিজিওথেরাপীর সুপারিশ করেছে। অথচ তাঁকে পরিকল্পিতভাবে কারাবন্দী করে এখন চিকিৎসার সুযোগও দেয়া হচ্ছে না। এটা জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ধ্বংস করতে বহুমুখী চক্রান্তের অংশ। বেগম জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে সরকার রাজনীতি করছে বলে মন্ব্য করেছেন বিশিষ্ট চিকিৎসক মুক্তিযোদ্ধা ও গনস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিচালক ডাক্তার জাফরউল্লাহ চেীধুরী। বলেন, সরকারের উচিত এখনি বেগম জিয়াকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল হাসপাতাল, বরডেম বা ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা। না হলে সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠতে বাধ্য। এদিকে, ‘অশুভ শক্তি যেন আর ক্ষমতায় না আসতে পারে’-পহেলা বৈশাখের প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় রিজভী বলেন, এখন জনগণ মনে করে দেশের সবচেয়ে বড় অশুভ শক্তি বর্তমান মহাজোট সরকার। ভোটারবিহীন অগণতান্ত্রিক শক্তি হচ্ছে সবচাইতে নিকৃষ্ট অশুভ শক্তি। তবে, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এতিমের টাকা আত্মসাতের মামলায় কারাগারে আছেন। আন্দোলন করে তাঁকে মুক্ত করা যাবে না। আজ রোববার দুপুরে মেহেরপুর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা শুরুর আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে আইনি লড়াই করেই মুক্ত করতে হবে। তাঁকে মুক্তি না দিলে বিএনপি নির্বাচনে আসবে না-এটা শুধু বিএনপির দর-কষাকষি ছাড়া কিছুই নয়।